Breaking News

সুস্থ থাকার জন্য পানি খাওয়ার উপকারিতা?

পানির অপর নাম জীবন। আমরা জানি প্রচুর পানি পান শরীরের জন্য খুবই উপকারী। তাছাড়াও যত বেশি পানি পান করা হয় কোনো ক্ষতি নেই। তবে এবার স্বাস্থ্য বিষয়ক একটি ওয়েবসাইট জানিয়েছে ভিন্ন তথ্য। যদি আপনার শরীরে পানির দরকার নেই অথচ পানি পান করছেন। তখন শরীর ভালোর বদলে উল্টাটা হতে পারে। তাই নিয়ম মেনে পানি পান করুন। পানি কখন খাবেন কোন পরিমান খাবেন  কিছু নিয়মাবলী নিচে তুলে ধরা হলো।

আসুন তাহলে জেনে নেই সেই উপকারগুলো কি কি?

ঘুম থেকে উঠেই পানি পান করতে হবে: একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে সকাল ঘুম থেকে উঠেই ১-২ গ্লাস পানি পান করলে শরীরের ভেতর বেশ কিছু পরিবর্তন হয়, যার প্রভাবে দেহের কর্মক্ষমতা মারাত্মক বৃদ্ধি পায়। সেই সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলির ক্ষমতাও বাড়তে শুরু করে। ফলে ছোট-বড় নানা রোগে আত্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা যায় কমে।

ভারি খাবার খাওয়া পরে পানি নয়: ভারি খাবার, যেমন ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ অথবা ডিনারের আগে পানি খেতে পারেন, কিন্তু পরে একবারেই নয়। আর খেতে খেতে পানি খাওয়া তো একবারেই চলবে না। প্রসঙ্গত, খাবার খাওয়ার আগে অল্প করে পানি পান চলতে পারে,বেশি করে খেলে কিন্তু খাবার খেতে পারবেন না। সেই সঙ্গে শরীর অস্বস্তি করার মতো লক্ষণও দেখা যেতে পারে।

তৃষ্ণা না পেলে পানি পান নয়: শরীর ঠিক রাখতে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি খাওয়া একান্ত প্রয়োজন। কিন্তু মাত্রতিরিক্ত পরিমাণে পানি খেলে শরীরে লবনের ভারসাম্য বিগড়ে গিয়ে নানা ধরনের রোগ হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়।

প্রস্রাব পরিষ্কার হলে: যখন দেখবেন প্রস্রাব হলুদ হচ্ছে না, তখন বুঝবেন আপনার শরীরের পানির প্রয়োজন নেই। আসলে প্রস্রাব হলুদ হওয়া মানেই শরীরে পানির ঘাটতি দেখা দিয়েছে। কিন্তু পানির ভারসাম্য টিক থাকাকালীন যদি আপনি অনবরত পানি পান করে যান তাহলে উলটো ফল হতে পারে!

শরীরচর্চার করার পরে সঙ্গে সঙ্গে পানি পান করবেন না: হালকা এক্সারসাইজের পর অল্প করে পানি খাওয়া যেতে পারে। কিন্তু ইনটেন্স ওয়ার্কআউটের পর পানি পান একেবারেই উচিত নয়। আসলে শরীরচর্চা করার সময় ঘামের সঙ্গে অনেক পরিমাণে মিনারেল বেরিয়ে যায়। তাই এই ঘাটতি মেটাতে শরীরচর্চার পর ডাবের পানি অথবা অন্য়ান্য় এনার্জি ড্রিঙ্ক খাওয়া উচিত, পানি একেবারেই নয়। প্রসঙ্গত, এই সময় পানি খেলে শরীরের অনেক ক্ষতি হয় কিন্তু। এখন প্রশ্ন হল কোন কোন সময় পানি পান করলে শরীরের উপকার হয়? আর বেশি মাত্রায় ক্যালরি যে শরীরের পক্ষে ভাল নয়, তা তো সবাই জানা। তাই না!

প্রতিটি মিলের আগে পানি পান জরুরি: খাওয়ার আগে এক গ্লাস পানি পান করলে পেট অনেকটা ভরে যায়। ফলে অতিরিক্তি খাবার খাওয়ার কারণে ওজন বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা যায় কমে। তাই যারা অতিরিক্ত ওজনের কারণে চিন্তায় রয়েছেন, তারা এই নিয়মটি যদি মেনে চলতে পারেন, তাহলে কিন্তু দারুন উপকার মিলতে পারে।

সংক্রমণ থেকে বাঁচতে পানি পান করা জরুরি: বাড়িতে কি অনেকেই ভাইরাল ফিবারে আক্রান্ত? তাহলে বন্ধু সুস্থ থাকতে বেশি মাত্রায় পানি পান করা জরুরি। কারণ বেশ কিছু স্টাডিতে দেখা গেছে শরীরে পানির মাত্রা যত বাড়তে থাকে, তত প্রস্রাবের মাত্রাও বেড়ে যায়। ফলে দেহের অন্দরে কোনও ধরনের ক্ষতিকর জীবণু বাসা বাঁধার সুযোগ পায় না। তাই সুস্থ থাকতে নিয়মিত ৩-৪ লিটার পানি পান করতে ভুলবেন না যেন!

About sobujcomputer

Check Also

২০২০ সালের অনার্স চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা শুরু তারিখ প্রকাশ

২০২০ সালের অনার্স চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা শুরু তারিখ প্রকাশ – ২০২১ ২০২০ সালের অনার্স চতুর্থ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *